1. [email protected] : বাংলারকন্ঠ : বাংলারকন্ঠ
  2. [email protected] : sharekhabor.com : sharekhabor.com
  3. [email protected] : muzahid : muzahid
রবিবার, ০২ এপ্রিল ২০২৩, ১১:৫১ পূর্বাহ্ন

ঝুঁকির তালিকায় নতুন শেয়ারের আনাগোনা বাড়ছে

  • আপডেট সময় : সোমবার, ২১ জুন, ২০২১
  • ১০৫ বার দেখা হয়েছে
dse-investor

গত বছর ১৫ জুন, ২০২০ ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) প্রধান সূচক ছিল ৩ হাজার ৯৫৮ পয়েন্ট। যা আজ সোমবার (২১ জুন) বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৬ হাজার ১২৫-এ।

বছরের ব্যবধানে পুঁজিবাজারের অনেক পরিবর্তন হয়েছে। সূচক বেড়েছে, লেনদেন বেড়েছে, বেড়েছে তালিকাভুক্ত কোম্পানির মূল্য আয় অনুপাতও (পিই রেশিও)।

এক বছর আগে সাধারণ বীমার বেশিরভাগ শেয়ারের পিই ছিল ১০-এর নিচে। এখন পিই ১০-এর নিচে বীমার কোন শেয়ার নেই। এমনকি পিই ২০-এর নিচেও বীমার শেয়ার খুব একটা নেই। যদিও এক বছর আগে সাধারণ বীমার কোন শেয়ারের পিই ৪০-এর উপরে ছিল না। এখন পিই ৪০-এর আশে-পাশেই বেশিরভাগ শেয়ারের অবস্থান। এমনকি পিই ৪০-এর উপরে থাকা বীমার সংখ্যাও এখন নেহায়েত কম নয়।

কেবল বীমার শেয়ার কেন, সব খাতের শেয়ারের পিই রেশিও বেড়েছে। সবচেয়ে কম পিইর ব্যাংকের শেয়ারের পিই-ও এখন বেড়েছে উল্লেখযোগ্য হারে। যদিও ব্যাংক খাতের এখনো পিই ১৫-এর নিচেই বেশিরভাগ শেয়ারের অবস্থান।

পিই বেড়েছে জ্বালানি, ফার্মা, খাদ্য, বস্ত্র ও প্রকৌশল খাতের শেয়ারের। এসব খাতে কোম্পানির শেয়ার দর বৃদ্ধির ফলে কিছুদিন আগেও যেসব কোম্পানির পিই ছিল ২০-এর নিচে, এখন সেসব কোম্পানির পিই ৪০-এর উপরে অবস্থান করছে।

পুঁজিবাজারে চাঙ্গাভাব ফিরে আসায় পাল্লা দিয়ে পিই রেশিও বাড়ছে তালিকাভুক্ত নতুন শেয়ারেরও। বর্তমানে ‘এন’ ক্যাটাগরিতে নতুন শেয়ার লেনদেন হচ্ছে ১১ কোম্পানির। কোম্পানিগুলো হলো-ক্রিস্টাল ইন্সুরেন্স, দেশ ইন্সুরেন্স, ই-জেনারেশন, এক্সপ্রেস ইন্সুরেন্স, এনার্জি প্যাক, ইনডেক্স এগ্রো, লুব-রেফ, মীর আখতার, এনসিবি কমার্শিয়াল ব্যাংক, রবি ও তৌফিকা ফুড লিমিটেড।

কোম্পানিগুলোর মধ্যে লেনদেনের শুরু থেকেই রবির শেয়ার ঝুঁকিপূর্ণ তালিকায় স্থান করে নিয়েছে। তখন কোম্পানিটির পিই রেশিও সেঞ্চুরির উপরে ছিল। এখন অবস্থান করছে ১৫৭.৫০-এ ।

দেশ জেনারেল ইন্সুরেন্সের পিই রেশিও লেনদেনে শুরুর কিছুদিন সহনশীল অবস্থায় ছিল। তারপর বীমা খাতে দ্বিতীয় দফা উল্লম্ফন শুরু হলে এটির দরেও উল্লম্ফন দেখা দেয়। ফলে চলে যায় ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থানে। বর্তমানে শেয়ারটির পিই ৭৬.৮০।

নতুন শেয়ারগুলোর মধ্যে পিই রেশিও ৩০ এর আশে-পাশে অবস্থান করছে এক্সপ্রেস ইন্সুরেন্স, ই-জেনারেশন, তৌফিকা ফুড, এনার্জি প্যাক ও ক্রিস্টাল ইন্সুরেন্স। এক্সপ্রেস ইন্সুরেন্সের পিই ৩৫.৭১, ই-জেনারেশনের পিই ৩০.৫৪, তৌফিকা ফুডের পিই ২৯.৩১, এনার্জি প্যাকের পিই ২৮.৯৭ এবং ক্রিস্টাল ইন্সুরেন্সের পিই ২৬.৩৫।

তবে পিই রেশিওর দিকে থেকে এখনো ভালো অবস্থানে রয়েছে লুব-রেফ, ইনডেক্স এগ্রো, মীর আকতার ও এনআরবিসি ব্যাংক। কোম্পানিগুলোর মধ্যে লুব-রেফের পিই ১৫.১৮, ইনডেক্স এগ্রোর পিই ১৭.৮৭, মীর আকতারের পিই ১৯.০৩ এবং এনআরবিসি ব্যাংকের পিই ১৯.৮৯। যদিও ব্যাংক খাতে গড় পিই’র তুলনায় এনআরবিসি ব্যাংকের পিই বেশ উঁচুতে।

শেয়ার দিয়ে সবাইকে দেখার সুযোগ করে দিন

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ