1. [email protected] : শেয়ারখবর : শেয়ারখবর
  2. [email protected] : Admin : Admin
  3. [email protected] : muzahid : muzahid
  4. [email protected] : nayan : nayan
মঙ্গলবার, ১৬ এপ্রিল ২০২৪, ১২:৩৮ অপরাহ্ন

শেয়ারবাজারে ব্যাংকের ১০ হাজার কোটি টাকা বিনিয়োগের সুযোগ

  • আপডেট সময় : মঙ্গলবার, ১৪ ডিসেম্বর, ২০২১
  • ১২৬ বার দেখা হয়েছে
Bank2

শেয়ারবাজারে অব্যাহত দরপতনের প্রেক্ষাপটে গত বছরের ফেব্রুয়ারি মাসে বাংলাদেশ ব্যাংক একটি সার্কুলার জারি করে ব্যাংকগুলোকে বিশেষ বিনিয়োগ তহবিল গঠনের সুযোগ দেয়। ওই সার্কুলার অনুযায়ী, ব্যাংক চাইলে নিজের টাকায় বা কেন্দ্রীয় ব্যাংক থেকে ধার নিয়ে বিনিয়োগ করতে পারে।

এ সুযোগ সৃষ্টির পর এ পর্যন্ত দেশের ৬০টি ব্যাংকের মধ্যে ৩২টি ব্যাংক বিনিয়োগের সুযোগ নিয়েছে। ৩২টি ব্যাংক চাইলে ছয় হাজার ৪০০ কোটি টাকার বিনিয়োগ তহবিল গঠন করতে পারত, কিন্তু গঠন করেছে চার হাজার ৫১০ কোটি টাকার তহবিল। আবার গঠন করা তহবিল থেকে এখন পর্যন্ত বিনিয়োগ করেছে মাত্র ১ হাজার ৯৯০ কোটি টাকা, যা গঠিত তহবিলের ৪৪ শতাংশ। অর্থাৎ ৩২ ব্যাংক চাইলে আরও ৪ হাজার ৪১০ কোটি টাকা বিনিয়োগ করতে পারে।

বাংলাদেশ ব্যাংকের সার্কুলার অনুযায়ি, ৬০টি ব্যাংক ১২ হাজার কোটি টাকা বিনিয়োগ করতে পারে। কিন্তু এই সুযোগ সৃষ্টির পর ৬০টি ব্যাংকের মধ্যে ৩২টি ব্যাংক যৎসামান্য সুযোগ নিয়েছে। ৩২টি ব্যাংক ছয় হাজার ৪০০ কোটি টাকার বিনিয়োগ করার সুযোগের বিপরীতে মাত্র ১ হাজার ৯৯০ কোটি টাকা বিনিয়োগ করেছে।

প্রাপ্ত তথ্য পর্যালোচনায় দেখা গেছে, সরকারি চার ব্যাংক সোনালী, রূপালী, অগ্রণী ও জনতা মিলে শেয়ারবাজার বিশেষ তহবিলের অধীনে মোট ৭২০ কোটি টাকার তহবিল গঠন করেছে। তবে এখন পর্যন্ত বিনিয়োগ করেছে ৩১২ কোটি টাকারও কম, যা গঠিত তহবিলের ৪৩ শতাংশ।

বেসরকারি ব্যাংকের বিনিয়োগেও একই চিত্র দেখা গেছে। বিশেষ এই তহবিলের অধীনে এখন পর্যন্ত ২৮ বেসরকারি ব্যাংক তিন হাজার ৭৯০ কোটি টাকার তহবিল গঠন করেছে। কিন্তু বিনিয়োগ করেছে এক হাজার ৬৭৮ কোটি টাকা, যা গঠিত তহবিলের ৪৪ শতাংশ। চাইলে এ ২৮ ব্যাংক কেন্দ্রীয় ব্যাংকের শেয়ারবাজার বিশেষ তহবিলের অধীনে পাঁচ হাজার ৬০০ কোটি টাকার বিনিয়োগ করতে পারে।

পর্যালোচনায় আরও দেখা গেছে, ৩২ ব্যাংকের মধ্যে ১৭টি ২০০ কোটি টাকা করে বিনিয়োগ তহবিল গঠন করেছে। ২০০ কোটি টাকার তহবিল গঠনের সুযোগ থাকলেও ছয়টি ব্যাংক ১০০ থেকে ১২০ কোটি টাকার এবং বাকি নয় ব্যাংক ১০ থেকে ৮০ কোটি টাকার তহবিল গঠন করেছে।

জানা গেছে, যে ৩২ ব্যাংক বিশেষ তহবিল থেকে শেয়ারবাজারে বিনিয়োগ করছে, তাদের ১৯টিই গঠিত তহবিলের ৫০ শতাংশই ব্যবহার করেনি। আটটি ব্যাংক গঠিত তহবিলের ৮০ থেকে প্রায় শতভাগ বিনিয়োগ করেছে। যদিও এ আট ব্যাংক এক হাজার ৬০০ কোটি বিনিয়োগ তহবিল গঠনের সুযোগের বিপরীতে মাত্র ৬৪০ কোটি টাকার তহবিল গঠন করে ৫৯২ কোটি টাকা বিনিয়োগ করেছে।

শেয়ারবাজার-সংশ্নিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, শুধু বিশেষ তহবিলই নয়, সিংহভাগ ব্যাংকই নিজস্ব পোর্টফোলিও বিনিয়োগেও সক্রিয় নয়। যদিও ব্যাংকগুলো নিজস্ব মূলধনের ২৫ শতাংশ পর্যন্ত বিনিয়োগ করতে পারে। এই হিসাবে বর্তমানের তুলনায় অন্তত দ্বিগুণে উন্নীত করার সুযোগ আছে।

সব ব্যাংকের শেয়ারবাজারে বিনিয়োগ বাজারমূল্যে হিসাব না করে ক্রয়মূল্যে হিসাব করার দাবি উঠেছে শেয়ারবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিএসইসিসহ সংশ্নিষ্ট পক্ষগুলোর দিক থেকে। সংশ্নিষ্টদের ধারণা, ব্যাংকগুলোর শেয়ারবাজার এক্সপোজার বাজার মূল্যের পরিবর্তে ক্রয়মূল্যে হিসাব হলে তাদের বিনিয়োগের সুযোগ আরও বাড়বে। তবে ভিন্ন মতও আছে। ব্যাপক সুযোগ থাকা সত্ত্বেও ব্যাংকগুলো যখন বিনিয়োগ করছে না, তখন ক্রয়মূল্যে এক্সপোজার গণনার সুযোগ দিলে যে করবে তার নিশ্চয়তা নেই।

শেয়ার দিয়ে সবাইকে দেখার সুযোগ করে দিন

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ