1. [email protected] : শেয়ারখবর : শেয়ারখবর
  2. [email protected] : Admin : Admin
  3. [email protected] : muzahid : muzahid
  4. [email protected] : nayan : nayan
রবিবার, ২১ এপ্রিল ২০২৪, ১২:১৫ অপরাহ্ন

বাণিজ্য মেলায় সবার দৃষ্টি কাড়ছে ওয়ালটনের অল ইন ওয়ান পিসি

  • আপডেট সময় : রবিবার, ৯ জানুয়ারী, ২০২২
  • ৩৯০ বার দেখা হয়েছে
walton

প্রথম বারের মতো রাজধানীর বাইরে পূর্বাচলে বাংলাদেশ-চায়না ফ্রেন্ডশিপ সেন্টারে চলছে ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলা। সেন্টারের মূল ভবনে ঢুকে বাম দিকে এগিয়ে যেতেই চোখে পড়ে দেশীয় ইলেকট্রনিক্স জায়ান্ট ওয়ালটনের দৃষ্টিনন্দন প্যাভিলিয়ন। এ প্যাভিলিয়নে ক্রেতা-দর্শনার্থীদের ভিড় দেখা গেছে। সবার দৃষ্টি কাড়ছে ওয়ালটনের অল ইন ওয়ান পিসি।

ওয়ালটনের প্যাভিলিয়নটি দৃষ্টিনন্দন হওয়ায় মেলায় আসা ক্রেতা-দর্শনার্থীরা একবার হলেও এখানে ঘুরে যাচ্ছেন। তারা ওয়ালটনের বিভিন্ন পণ্য সম্পর্কে জানার আগ্রহ প্রকাশ করছেন। তরুণ ক্রেতা-দর্শনার্থীরা ওয়ালটনের অল ইন ওয়ান পিসির বিষয়ে বিশেষ আগ্রহ দেখাচ্ছেন। প্যাভিলিয়নে কর্মরত ওয়ালটনের কর্মকর্তারা ক্রেতা-দর্শনার্থীদের আন্তরিকতার সঙ্গে সেবা দিচ্ছেন। ওয়ালটনের পণ্যও বিক্রি হচ্ছে বেশ।

গাজীপুর থেকে মেলায় আসা পারভেজ আহমেদ রাইজিংবিডিকে বলেন, ‘আমি ঢাকা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (ডুয়েট) লেখাপড়া করি। ওয়ালটনের অল ইন ওয়ান পিসি আমার কাছে খুব ভালো লেগেছে। যেসব শিক্ষার্থী ভার্সিটির হলে বা মেসে থাকেন, তাদের এ পিসি প্রয়োজন। এ পিসিটির মনিটরে সঙ্গে সবকিছু যুক্ত থাকায় জায়গা কম লাগে।

জানা গেছে, অল ইন ওয়ান পিসিতে মডেলভেদে আছে ইন্টেলের দশম প্রজন্মের কোর আই-থ্রি এবং কোর আই-ফাইভ প্রসেসর। বাকি সব কনফিগারেশন প্রায় একই। মেমোরি হিসেবে সবগুলো ভ্যারিয়েন্টে থাকছে ৮ গিগাবাইট ২৬৬৬ মেগাহার্জ ডুয়েল চ্যানেল ডিডিআর৪ র‌্যাম, যা ৩২ গিগাবাইট পর্যন্ত এক্সপান্ড করা যাবে। সব মডেলে ১ টেরাবাইট হার্ড ড্রাইভের পাশাপাশি কোর আই-থ্রি ভ্যারিয়েন্টে ১২৮ গিগাবাইট এসএসডি এবং কোর আই-ফাইভ ভ্যারিয়েন্টে ২৫৬ গিগাবাইট এসএসডি’র সমন্বয়ে ডুয়েল স্টোরেজ ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। এতে ব্যবহত হয়েছে ২১.৫ ইঞ্চি ডিসপ্লে, যার অ্যাসপেক্ট রেশিও ১৬:৯। গ্রাফিক্স ইউনিটে আছে ইন্টেল ইউএইচডি ৬৩০ গ্রাফিক্স এবং ইন্টেল এইচ৪১০ চিপসেট। ইন্টারনেট কানেক্টিভিটির জন্য ইথারনেট পোর্ট ছাড়াও আছে বিল্ট ইন ওয়াই-ফাই। ফাইল শেয়ারিং কিংবা ওয়ারলেস কানেক্টিভিটির জন্য আছে ব্লুটুথ। বিল্ট ইন স্পিকারে সরাসরি সাউন্ড উপভোগ করার সুবিধার পাশাপাশি থাকছে অডিও পোর্টে আলাদা স্পিকার ব্যবহারের সুবিধা। ডিভাইসগুলোর বিশেষ সুবিধা হিসেবে থাকছে ২.০ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা, যা ভিডিও কনফারেন্সে ব্যবহারের উপযোগী।

ওয়ালটন অল-ইন-ওয়ান কম্পিউটারের প্রোডাক্ট ম্যানেজার রাকিব বিন কাদের বলেছেন, ‘বর্তমানে বাংলাদেশের বাজারে অল-ইন-ওয়ান পিসির খুব বেশি ভ্যারিয়েন্ট দেখা যায় না। এই ক্যাটাগরিতে বিভিন্ন শ্রেণির গ্রাহকের প্রয়োজনীয়তা বিবেচনায় আমরা ডিভাইস ডেভেলপ করেছি। এটি অল্প জায়গায় ব্যবহার করা যায়। একই সঙ্গে সহজে বহন করা যায়।’

রাজধানীর মগবাজার থেকে বাণিজ্য মেলায় এসেছেন রাসেল হাওলাদার। তিনি জানান, ‘আমি তিতুমীর কলেজে অনার্সে দ্বিতীয় বর্ষে পড়ি। একটা ল্যাপটপ কিনতে চেয়েছিলাম। কিন্তু মেলায় ওয়ালটনের অল ইন ওয়ান পিসির ফিচারগুলো ভালো লেগেছে। তাই সিদ্ধান্ত নিয়েছি, ল্যাপটপ না কিনে এ পিসি কিনব।’

বাজারে ও মেলায় ৬৫ হাজার ৫০০ টাকা থেকে ৬৮ হাজার ৫০০ টাকার মধ্যে পাওয়া যাচ্ছে অল-ইন-ওয়ান কম্পিউটার। দেশের সব ওয়ালটন শোরুমে অন্যান্য পণ্যের পাশাপাশি অল-ইন-ওয়ান পিসি পাওয়া যাচ্ছে। এছাড়া, অনলাইনে ই-প্লাজা থেকে অর্ডার করতে পারছেন গ্রাহকরা।

অল-ইন-ওয়ান পিসিতে ২ বছর পর্যন্ত বিক্রয়োত্তর সেবা দিচ্ছে ওয়ালটন। দেশব্যাপী ওয়ালটনের সার্ভিস সেন্টার থেকে দ্রুততম সময়ে বিক্রয়োত্তর সেবা দেওয়া হচ্ছে গ্রাহকদের।

শেয়ার দিয়ে সবাইকে দেখার সুযোগ করে দিন

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ